Categories
Uncategorized

5 Celebrities whom Admitted To Mental Disorder

5 Celebrities whom Admitted To Mental Disorder

After accused by a number of females of intimately assaulting them, Hollywood Harvey that is mogul Weinstein kept Los Angeles on Tuesday evening for the intercourse addiction rehab center in European countries, TMZ reported. Relating to sources, Weinstein stated he can enter a live-in center and handle intercourse along with other behavioral issues.

Amid news that the producer has looked for intercourse addiction rehab, a few concerns arise about what the condition is, its kinds, indications, factors, and impacts.

Intercourse addiction is really a variety of psychological disorder described as compulsive engagement in sexual intercourse, specially sexual intercourse, despite negative effects.

Based on the Ranch, “Sex addiction, also referred to as hypersexual condition, is described as persistent and escalating intimate ideas and functions which have an adverse effect on the individual’s life.

Categories
Uncategorized

Western Sky Financial Sued for Charging Interest Rates up to 355percent

Western Sky Financial Sued for Charging Interest Rates up to 355percent

Western Sky Financial, a south-dakota-based lender that is online’s become infamous because of its sky-high rates of interest, is finally being sued.

Ny State Attorney General Eric T. Schneiderman announced that his office has filed a lawsuit against Western Sky for charging rates that far exceed what is permissible under New York law tuesday.

Categories
Uncategorized

A concern About Catholic “Dating” Sites. Today there are 1000s of dating sites over the internet.

A concern About Catholic “Dating” Sites. Today there are 1000s of dating sites over the internet.

bear in mind if you should be hunting for orthodox Christian online dating services or niche agencies like Catholic, Chinese, Asian or teenage online dating services — a few of these are harder to find; you might be more prone to find these kind of online dating services, agencies or systems in big towns like brand new you can City, Chicago, il, l . a . and Seattle, by way of example , or significant towns in European countries.

As opposed to having longer conversations about Lord and faith with people that are certainly not determining themselves as Christians (or haven’t decided yet), it is possible to just take it easy having a partner and also require the philosophy that is same you do. Look for a pure like as well as 100 per cent pure catholic internet dating site and gain long term faith-oriented relations.

1 day another buddy asked her that considering that the bible said we needed to just simply simply take Jesus Christ whenever our individual savior so that you can head to nirvana, what took place to any or all people who arrived before Christ and exactly how it changes most of the babies and young ones who’re too teenager.

Categories
Uncategorized

মানুষ আওয়ামী লীগকে ভয় পায় না, ভয় পায় পুলিশকে

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে ধর্ষণের ঘটনার তীব্র সমালোচনা করে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম বলছেন, মাস খানেক ধরে দুর্বৃত্তরা এ কাজ করেছে।

পুলিশ কিছু করেনি। কারণ, সারা দেশে সরকারের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। ভোট চুরির সরকার প্রশাসনকে ব্যবহার করেছে। তাই মানুষ আওয়ামী লীগকে ভয় পায় না, ভয় পায় পুলিশকে। বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এক মানববন্ধনে তিনি এ কথা বলেন।

সরকারি দলের দুর্বৃত্তদের হাতে সিলেটের এমসি কলেজ প্রাঙ্গণে নববধূর সম্ভ্রমহানি, নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে এক গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ঘটনাসহ সারা দেশে অব্যাহত নারী ও শিশুর ওপর সহিংস্রতার প্রতিবাদে এ কর্মসূচির আয়োজন করে বাংলাদেশ শিশু ও নারী অধিকার ফোরাম।

‘রুখে দাঁড়াও বাংলাদেশ’ লেখা কালো কাপড় মুখে মাথা ও মুখে বেঁধে সংগঠনের সহাস্রাধিক নেতাকর্মী মানববন্ধনে অংশ নেন। এ সময় তারা ‘নিপীড়ক যেখানে, লড়াই হবে সেখান’, ‘ফাঁসি চাই, ফাঁসি চাই’, ‘ধর্ষকের ফাঁসি চাই’, ‘মা-বোনেরা ভয় নাই, রাজপথে আমরা আছি’ ইত্যাদি স্লোগান দেন। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, মানুষ করোনার ভ্যাকসিন চায় না। মানুষ ধর্ষণবিরোধী ভ্যাকসিন চায়। মানুষ এখন মানসম্মান নিয়ে মরতে চায়। শেখ হাসিনাকে বিদায় দেয়াই সেই ভ্যাকসিন। দেশ স্বাধীন হয়েছে জীবন ও রক্ত দিয়ে। গণতন্ত্রকেও তা দিয়ে রক্ষা করতে হবে।

মানববন্ধনে সংহতি জানিয়ে নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, প্রশাসন দিয়ে জনগণের ভোটের অধিকার ডাকাতি করেছে। আওয়ামী লীগ এখন ডাকাত, লুটেরা, ধর্ষকের দলে পরিণত হয়েছে। সরকার ধর্ষকদের রক্ষার চেষ্টা করছে দাবি করে তিনি বলেন, এ আন্দোলন চালিয়ে যেতে হবে। থামা যাবে না। সরকারের পদত্যাগ চাই।

শিশু ও নারী অধিকার ফোরামের আহ্বায়ক ও বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সেলিমা রহমানের সভাপতিত্বে এবং সদস্য সচিব নিপুণ রায় চৌধুরী ও সদস্য মীর নেওয়াজ আলী নেওয়াজের পরিচালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য দেন বিএনপির সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, মীর সরাফত আলী সপু, মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল, দেওয়ান মো. সালাহউদ্দিন, খন্দকার আবু আশফাক, সিমকি ইমাম, তমিজউদ্দিন মাস্টার, বজলুল বাসিত আনজু, আবদুল আলিম নকি, এজিএম শামসুল হক, আবদুল কাদির ভূঁইয়া জুয়েল, এসএম জিলানি, ফখরুল ইসলাম রবিন, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস কাজল প্রমুখ।

Categories
Uncategorized

Crisis cash loans for unemployed. Installment loan providers

Crisis cash loans for unemployed. Installment loan providers

Crisis money loans for unemployed. Installment loan providers

Credit funding cwb services advance loan, emergency money loans for unemployed DeLand, Florida financial unsecured credit that is bad loan 1 hr advance loan. Five an ideas that are few college getaway tasks, which do not amount big money and may be recalled fondly by both you and your child for quite a while later on.

Claim This Profile More Details for Checkmate Payday Advances Categorized under Loans.

Categories
Uncategorized

ডায়েরিতে লিখে গেছেন খুন হতে পারেন, পরদিন লাশ উদ্ধার

রংপুর কারমাইকেল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের ছাত্রী রুখিয়া রাউৎ মৃত্যুর আগের দিন ডায়েরিতে লিখে গেছেন তিনি খুনের শিকার হতে পারেন। বদরগঞ্জ উপজেলার রামনাথপুর ইউনিয়নের মিশনপাড়ার বাড়ি থেকে বের হওয়ার আগে সোমবার তিনি ডায়েরিতে এ কথা লেখেন। ডায়েরিতে তিনি লিখেছেন- প্রতিবেশী যুবক আনিছুর রহমান তাকে খুন করতে পারে। পরদিন মঙ্গলবার ভোরে পাশের পার্বতীপুর উপজেলার হরিরামপুর থেকে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় আনিছুরসহ তিনজনকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। রুখিয়া হত্যার প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার বদরগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছে স্থানীয় বিভিন্ন সংগঠন। মিশনপাড়ায় বাড়তি সতর্কতার জন্য গ্রামপুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

বুধবার দিনাজপুর এম আবদুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে ময়নাতদন্তের পর বদরগঞ্জে সাঁওতাল ধর্মীয় রীতিনীতে রুখিয়ার লাশ দাফন করা হয়। বৃহস্পতিবার দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন বদরগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলে রাব্বি সুইট, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মেহেদী হাসান ও ইউপি চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল মামুন।

পারিবারিক সূত্র জানায়, রংপুরে যাওয়ার উদ্দেশে সোমবার বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে বাড়ি থেকে বের হন রুখিয়া। রংপুরে বান্ধবীদের সঙ্গে এক রাত থাকার পর তার বাড়িতে ফিরে আসার কথা ছিল। বাড়িতে ফিরে না আসায় এবং তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়ায় পরিবারের লোকজন উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েন। মঙ্গলবার ভোরে পাশের পার্বতীপুর উপজেলার হরিরামপুর ইউনিয়নের পাঁচপুকুরিয়ার শালবাগান থেকে তার রক্তাক্ত ও ক্ষতবিক্ষত লাশ উদ্ধার করা হয়। মধ্যপাড়া পুলিশ ফাঁড়ির সদস্যরা প্রথমে অজ্ঞাতপরিচয় হিসেবে তার লাশ উদ্ধার করে। এ সময় তার হাত-পা ও গলার সঙ্গে তার ওড়না বাঁধা ছিল। এ ঘটনায় বুধবার ভোরে রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলার রামনাথপুর ইউপির খোর্দবাগবাড় এলাকা থেকে তিনজনকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। তারা হল- হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী ও প্রেমিক খুনি আনিছুর রহমান, অটোচালক রাজ মিয়া ও আশিকুজ্জামান। বুধবার খুনের দায় স্বীকার করে দিনাজপুর আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে আনিছুর।

বৃহস্পতিবার দুপুরে বদরগঞ্জ উপজেলার রামনাথপুর ইউনিয়নের খোর্দবাগবাড় মিশনপাড়ায় আদিবাসী সাঁওতাল সম্প্রদায়ের নারী-পুরুষ বিক্ষোভ ও গণমিছিল করে। জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে তারা মানববন্ধন করেন। এ সময় বক্তব্য দেন রুখিয়ার বাবা দিনেশ রাউৎ, মা সুমতি রাউৎ, বদরগঞ্জ উপজেলা ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী সমাজ উন্নয়ন সমিতির সভাপতি শ্যামল টুডু, সাধারণ সম্পাদক জনপল মিনজী, সংস্কৃতিবিষয়ক সম্পাদক শিবলন হেমরণ ও হেলালুস টুডুসহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা। সাঁওতাল পরিবারের নারী-পুরুষদের শান্ত থাকার অনুরোধ জানিয়ে ইউএনও মেহেদী হাসান বলেন, ‘মিশনপাড়ায় সতর্কতা জারি করে বাড়তি নিরাপত্তা দেয়া হয়েছে। যাতে সেখানে কেউ কোনো ধরনের অনাকাক্সিক্ষত ঘটনার সূত্রপাত করতে না পারে। এ সময় নিহতের পরিবারকে নগদ অর্থসহ খাদ্য সহায়তা দেন।

রংপুর কারমাইকেল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের অনার্স ইতিহাস বিভাগের শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন তিনি। রুখিয়ার লাশের পরিচয় জানতে ওইদিন সন্ধ্যায় দিনাজপুর পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) একটি তদন্ত দল হাতের আঙুলের ছাপ নেয়। জাতীয় পরিচয়পত্রের সঙ্গে চেহারার ছবি মিলে যাওয়ায় তার পরিচয় নিশ্চিত হন তারা।

এ ঘটনার পর দিনাজপুরের অ্যাডিশনাল এসপির (ফুলবাড়ী সার্কেল) নির্দেশে পার্বতীপুর থানার ওসি (তদন্ত) সোহেল রানার নেতৃত্বে অভিযান চালানো হয়। বদরগঞ্জের রামনাথপুর ইউপির খোর্দবাগবাড় এলাকার আবদুল গফুরের ছেলে মূলহোতা আনিছুর রহমান, তার বোনজামাই অটোচালক বাবু মিয়ার ছেলে রাজ মিয়া ও পার্শ্ববর্তী পার্বতীপুর উপজেলার পলাশবাড়ী ইউপির দুর্গাপুর এলাকার জয়নাল আবেদীনের ছেলে আশিকুজ্জামানকে বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

Categories
Uncategorized

ভারতীয়রা মনে করে ক্রিকেট বিশ্বের তারাই নিয়ন্ত্রক,তবে সবসময়ই নিজেদেরকে প্রভাবশালী ভাবা ঠিক না-অ্যালানবর্ডার

আগামী মাস থেকে শুরু হতে যাওয়া অস্ট্রেলিয়া-ভারত সিরিজের সূচী এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা হয়নি। তবে এরইমধ্যে ভারতীয়রা দাবি জানিয়েছে খসড়া সূচীতে পরিবর্তন আনতে। অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটের ঐতিহ্য অনুযায়ী বক্সিং ডে টেস্টের পরপরই নিউ ইয়ার টেস্ট খেলতে রাজি নয় ভারতীয়রা।

এ অবস্থায় সম্প্রচার প্রতিষ্ঠান চ্যানেল সেভেন এর তীব্র বিরোধিতা করেছে। কেবল তারাই নয়, সমালোচকদের দলে এবার যোগ দিয়েছেন অজি কিংবদন্তি অ্যালান বর্ডার। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের অবস্থানের তীব্র সমালোচনা করেছেন তিনি।
ঐতিহ্য অনুযায়ী, ২৫ ডিসেম্বর বড়দিনের পরদিন থেকে শুরু হয় বক্সিং ডে টেস্ট। এরপর ৩ জানুয়ারি শুরু হয় নিউ ইয়ার টেস্ট। যুগের পর যুগ এভাবেই খেলে এসেছে অস্ট্রেলিয়ানরা। তবে এই সূচিতে খেলতে রাজি নয় ভারতীয়রা। তাদের দাবি, ক্রিকেটারদেরকে পর্যাপ্ত বিরতি দিয়ে ৭ জানুয়ারি থেকে শুরু করা হোক সিডনি টেস্ট।

ভারতীয়দের এমন অবস্থানের কড়া প্রতিবাদ জানিয়ে সাবেক অজি কিংবদন্তি অ্যালান বর্ডার বলেন, এটা কোনোভাবেই নেগোশিয়েট করার বিষয় নয়। যদি বিশ্বব্যাপী চলমান ভাইরাসের কারণে ম্যাচ পেছানোর কথা হতো, তাহলেও বিষয়টি ভাবা যেত। কিন্তু শুধুমাত্র তাদের বিশ্রাম দরকার সেজন্যে বক্সিং ডে টেস্ট এবং নিউ ইয়ার টেস্ট পেছাতে হবে, এটা খুবই অযৌক্তিক দাবি। এটা ‘রাবিশ’ একটা দাবি।

সিরিজটি নিয়ে বর্ডারের এমন মাথাব্যথার কারণও অবশ্য আছে। কারণ ভারত আর অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার এই সিরিজটি পরিচিত বর্ডার-গাভাস্কার ট্রফি হিসেবে। তিনি বলেন, আমরা বছরের পর বছর ধরে এভাবে খেলে আসছি। ব্যাক টু ব্যাক ম্যাচ? এভাবেই তো ক্রিসমাস এবং নববর্ষে আমরা খেলছি! তাহলে এবার কেন নয়? ভারতীয়রা বিশ্রাম চায় সেজন্যে আমি ম্যাচটা পেছানোর পক্ষে নই কোনোভাবেই।

বর্ডার আরো বলেন, ভারতীয়রা আমাদের সঙ্গে মাইন্ডগেম খেলতে চায়। তারা মনে করে, ক্রিকেট বিশ্বের তারাই নিয়ন্ত্রক। যদি আর্থিক দিক থেকে ভাবে তাহলে ঠিক আছে। তবে সবসময়ই নিজেদেরকে প্রভাবশালী ভাবা ঠিক না। কিন্তু সূচির কথা যদি বলেন, আমি বলবো এটা শুধুই আমাদের ব্যাপার। এই তারিখগুলোতেই আমরা খেলবো এবং তাদেরকে আমাদের কথা মানতে হবে। আপনি অনেককিছু নিয়ে নেগোশিয়েট করতে পারেন কিন্তু এই তারিখগুলো আমাদের ঐতিহ্য। এসবে আমরা ছাড় দিবোনা।

কেবল তারিখ নিয়েই নয়, ভেন্যু নিয়েও আপত্তি জানিয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড-বিসিসিআই। নিয়মানুযায়ী প্রতিবছর এই সিরিজের ১ম টেস্ট হয় ব্রিসবেনে। তবে ভারতীয়দের দাবির প্রেক্ষিতে এবার সেটিও পরিবর্তন করা হয়েছে। এমন সিদ্ধান্তেরও তীব্র সমালোচনা করেছেন বর্ডার।

তিনি বলেন, অনেক বছর ধরেই ব্রিসবেন টেস্ট হয় সিরিজের ১ম ম্যাচ। এভাবেই চলছে। এটা দারুণ একটা গ্রাউন্ড। এখানে আমাদের গ্রীষ্মের শুরুটা চমৎকার হয়। কিন্তু ভারতীয়রা ব্রিসবেনে ১ম টেস্ট খেলতে চায়না, এমনটা হতে পারেনা। এটা তাদের বলার মতো বিষয় না। আমাদের উচিত বলা যে, এই হচ্ছে ভেন্যু এবং এই হচ্ছে তারিখ, এরমধ্যেই তোমাদেরকে খেলতে হবে। কখন খেলা হবে, কোথায় খেলা হবে সেটা আমাদের বিষয়। এটা নিয়ে একচুল পরিমান ছাড় দেয়াও ঠিক হবেনা।

ভারতীয়দের দাবি অনুযায়ী ম্যাচ পেছানো হলে সিরিজটি শেষ হবে ১৯ জানুয়ারি। যেটি মূলত শেষ হয়ে যাওয়ার কথা আরো আগেই। ‌১৯ জানুয়ারি সিরিজটি শেষ করতে গেলে আরো বেশি ক্ষতির মুখে পড়তে হবে সম্প্রচার প্রতিষ্ঠান চ্যানেল সেভেনকে। কারণ ১৪ জানুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে অস্ট্রেলিয়ান ওপেন। দেশটিতে ক্রিকেটের চেয়েও জনপ্রিয় এই টেনিস টুর্নামেন্ট শুরু হলে দর্শকরা মুখ ফিরিয়ে নিবে ক্রিকেট থেকে।

সবকিছু বিবেচনা করে এরইমধ্যে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার কাছে ক্ষতিপূরণ দাবি করেছে চ্যানেল সেভেন।

সূত্র: সময় নিউজ।

Categories
Uncategorized

হ্যাকিং করে প্রতি মাসে দেড়-দুই লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিতো ৩ প্রতারক

সিলেটে ৮ মাসে প্রায় ১০ লক্ষের উপরে অর্থ হাতিয়ে নিয়েছে একটি ভয়ঙ্কর সাইবার প্রতারকচক্র। তবে শেষ রক্ষা হয়নি, এ চক্রের প্রধানসহ দুজনকে পাকড়াও করেছে র‌্যাব। আরেক প্রতারককে ধরতে চলছে অভিযান।

গত ফেব্রুয়ারি মাস থেকে এ পর্যন্ত প্রতি মাসে দেড় থেকে দুই লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিতো প্রতারক চক্রটি। একসময় হ্যাকিং করা এ প্রতারক চক্রের নেশা ও এর মাধ্যমে অর্থ আত্মসাৎ পেশা হয়ে দাঁড়ায়। এভাবে অর্থ কামিয়ে উন্নত জীবনযাপন করা এবং অল্প সময়ে ধনী হওয়াই তাদের লক্ষ্য ছিলো।

জানা গেছে, সিলেটে গড়ে উঠা এই সাইবার প্রতারক চক্রটি প্রবাসী, বিত্তশালী ও সমাজে প্রতিষ্ঠিতদের ব্যক্তিগত তথ্য চুরি ও ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক করে প্রতারণার মাধ্যমে ইতোমধ্যে হাতিয়ে নিয়েছে লাখ লাখ টাকা। তীক্ষ্ম নজরদারি আর গভীর তদন্তের মাধ্যমে অবশেষে এ চক্রের প্রধানসহ দুইজনকে আটক করতে সক্ষম হয়েছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)-৯।

র‌্যাব জানায়, সাইবার প্রতারকচক্রের প্রধান মাে. মামুন মিয়া বয়স (২০) ও তার অন্যতম সহযোগী আফজাল হােসেন রিমন (২০)-কে আটক করা হয়েছে। মামুন সুনামগঞ্জ জেলার দোয়ারাবাজার থানার মান্নারগাঁও গ্রামের মাে. মিরাশ আলীর ছেলে। সে নগরীর চৌকিদেখি ১নং রােডের ২৩/১ নং বাসার ৪র্থ তলায় ভাড়াটে থাকতো। মামুনের সহযোগী রিমন একই থানার গোপালপুর গ্রামের বশির উদ্দিনের ছেলে।

এদিকে, এ চক্রের আরেক প্রতারক জাবের আহম্মেদ (২৯)-কে এখনও গ্রেফতার করতে পারেনি র‌্যাব। তবে তাকে ধরতে অভিযান চলছে। জাবের দোয়ারাবাজার থানার বসরপুর গ্রামের মাে. তফসির উদ্দিনের ছেলে।

বৃহস্পতিবার সংবাদ সম্মেলন করে র‌্যাব-৯ জানায়, দীর্ঘদিন ধরে সিলেটে একটি সাইবার প্রতারকচক্র ফেইসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাকের মাধ্যমে প্রবাসী, দেশের বিত্তশালী ও সামাজিকভাবে প্রতিষ্ঠিত ব্যক্তিদের ব্যক্তিগত তথ্য চুরি করে বিভিন্ন প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে বড় অংকের টাকা হাতিয়ে নিতো। সে টাকাগুলো জমা হতো প্রতারকচক্রের সদস্যদের বিকাশ অ্যাকাউন্টে।

প্রতারণার শিকার ব্যক্তিদের কাছ থেকে অভিযোগ পেয়ে এ বিষয়ে তদন্তে নামে র‌্যাব-৯। তীক্ষ্ম নজরদারী আর গভীর তদন্তের পর অবশেষে বৃহস্পতিবার (৮ অক্টোবর) সকাল ৯ টায় বিকাশের টাকা উত্তোলনের সূত্র ধরে র‌্যাবের একটি দল নগরীর চৌকিদেখিতে অভিযান চালিয়ে সাইবার প্রতারকচক্রের প্রধান মামুন মিয়াকে গ্রেফতার করে।

পরে তার দেয়া তথ্যমতে বৃহস্পতিবার দুপুর ১১টায় সুনামগঞ্জ থেকে মামুনের অন্যতম সহযােগী আফজাল হােসেন রিমনকে গ্রেফতার করা হয়।

র‌্যাবের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে মামুন জানায়- বিভিন্ন ওয়েবসাইট ঘেটে এবং ইউটিউব থেকে হ্যাকিং বিষয়ক ভিডিও দেখে সে হ্যাকিং শিখে। একপর্যায়ে মামুন হাকিংয়ে দক্ষ হয়ে উঠে এবং একের পর এক প্রবাসী, বিত্তশালী ও সামাজিকভাবে প্রতিষ্ঠিত ব্যক্তিগের ফেইসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক করতে থাকে।

হ্যাক করার পর ওই অ্যাকাউন্টের ফ্রেন্ড লিস্ট পর্যবেক্ষণ করে আইডি’র মূল মালিকের আত্মীয়-স্বজন বা বন্ধুর কাছে অতি প্রয়োজন দেখিয়ে, আকস্মিক কোনো সমস্যা অথবা কোনো দরিদ্র লােকের চিকিৎসার কথা বলে টাকা চাইতো এবং বিকাশের মাধ্যমে সে টাকা নিয়ে আসতো।

পরে সে টাকা মামুন তার দুই সহযোগী রিমন ও জাবেরের মাধ্যমে সিলেট এবং সুনামগঞ্জের বিভিন্ন বিকাশ পয়েন্ট থেকে উত্তোলন করতাে।

প্রতারণার লক্ষ্যে মামুন, রিমন ও জাবের প্রায় দুইশ জনের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে মেসেজ দিতো। যারা তাদের প্রতারণার ফাঁদে পা দিতেন তাদের কাছ থেকে হাতিয়ে নিতো বড় অংকের টাকা।

সূত্র: সিলেটভিউ

Categories
Uncategorized

মুসলমানদের কাছে আন্তরিকভাবে ক্ষমা চেয়েছেন রিয়ান্না

ফ্যাশন শোতে বাজানো গানে পবিত্র হাদিস জুড়ে দিয়ে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছেন পপতারকা রিয়ান্না। সম্প্রতি বারবাডোজের ৩২ বছর বয়সী গায়িকা ‘স্যাভেজ এক্স ফেন্টি’ নামের এক ফ্যাশন শোতে অংশ নিয়ে ‘ডুম’ শিরোনামের গান পরিবেশন করেন। গানে কিয়ামত ও হাশরের ময়দানে বিচার কার্যবিষয়ক হাদিস ব্যবহার হয়।

গত ২ অক্টোবর অ্যামাজন প্রাইমে ফ্যাশন শোর অনুষ্ঠানটি মুক্তি পায়। টুইটারে বিষয়টি ভাইরাল হলে গ্র্যামিজয়ী এ গায়িকা ব্যাপক নিন্দিত হন। গত কয়েক দিন ধরে নানা বিষবাক্য হজম করার পর অবশেষে মুসলমানদের কাছে আন্তরিকভাবে ক্ষমা চেয়েছেন রিয়ান্না।

গত মঙ্গলবার নিজের ইনস্টাগ্রাম স্টোরিসে রিয়ান্না লেখেন অজান্তে ঘটে যাওয়া বিরাট ভুল ধরিয়ে দেয়ার জন্য মুসলিমদের ধন্যবাদ জানাতে চাই। এমন অসতর্কতার কারণে আপনাদের কাছে ক্ষমা চাই। আমরা বুঝতে পেরেছি অনেক মুসলিম ভাইবোনের অনুভ‚তিতে আঘাত লেগেছে। এ কারণে আমি খুবই মর্মাহত। ফ্যাশন শোতে এমন গান ব্যবহার করে সম্পূর্ণ দায়িত্বজ্ঞানহীনতার পরিচয় দিয়েছি। কথা দিচ্ছি আগামীতে আর কখনও এমন কিছু ঘটবে না। আপনারা বিষয়টি বুঝে ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখলে স্বস্তি পাব।’

এদিকে সমালোচিত সেই ‘ডুম’ গানের প্রযোজক কুকু ক্লোয়ি সব প্ল্যাটফরম থেকে গানটি সরিয়ে নেয়ার প্রতিশ্রæতি দিয়েছেন। রিয়ান্নার মতো তিনিও মুসলমানদের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন। সূত্র : নিউজ১৮।

Categories
Uncategorized

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ মত ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড করার প্রক্রিয়া শুরু করেছি: আইনমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশ মতে দেশে ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড করার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। বৃহস্পতিবার (৮ অক্টোবর) রাতে বাংলা ট্রিবিউনকে তিনি এ তথ্য জানান।

আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের কাছে জানতে চাওয়া হয়, দেশে ধর্ষণের মতো অপরাধ দমনে সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড করার বিষয়টি সরকার বিবেচনা করছে কিনা? জবাবে আনিসুল হক বলেন, ‘বিবেচনা না। আমরা শাস্তি বৃদ্ধি করবো। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গতকাল (৭ অক্টোবর) আমাকে নির্দেশ দিয়েছেন, ধর্ষণ অপরাধের সাজা বৃদ্ধির প্রক্রিয়া (আইন সংশোধন) শুরু করার জন্য। তাই সাজা বাড়াতে আইন সংশোধন করার যে প্রক্রিয়া তা আমরা শুরু করে দিয়েছি।’

আগামী সপ্তাহের সোমবার (১২ অক্টোবর) মন্ত্রিসভার বৈঠকে ধর্ষণ অপরাধের সাজা বৃদ্ধির আইন সংশোধনের বিষয়টি উপস্থাপন করা হবে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রী।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ, সিলেটের এমসি কলেজ, লক্ষ্মীপুর, গোপালগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় ধর্ষণের ঘটনা বৃদ্ধি পেয়েছে। এই পরিস্থিতিতে দেশের বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন এর বিরুদ্ধে ফুঁসে উঠেছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও চলছে প্রতিবাদের ঝড়। এই অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে সরকার ধর্ষণ অপরাধের সাজা বৃদ্ধির এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।